• Saturday, November 18, 2017
logo
add image

মিরসরাইয়ে রাতের আঁধারে সবজি ক্ষেত উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

মিরসরাইয়ে রাতের আঁধারে সবজি ক্ষেত উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

মিরসরাইয়ে রাতের আঁধারে সবজি ক্ষেত উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা

মিরসরাই প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাতের আঁধারে ৩০ শতক জমিতে চাষকৃত বিভিন্ন সবজি ক্ষেতের চারা উপড়ে ও কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার ১৫ নম্বর ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের মধ্যম ওয়াহেদপুর এলাকার পাহাড়ের পাদদেশে এই ঘটনা ঘটেছে।জানা গেছে দক্ষিণ ওয়াহেদপুর এলাকার বেচুরাম চন্দ্র নাথের ছেলে সুজন চন্দ্র নাথ ১৫ শতক জমি বর্গা নিয়ে বরবটি চাষ করেছেন। এতে প্রায় ১৫-১৬ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।

শনিবার রাতে কে বা কারা তাঁর চাষকৃত জমির সব বরবটি চারা উপড়ে ফেলে। একই রাতে ওই এলাকার কৃষক মনা চন্দ্র নাথের ছেলে কানু চন্দ্র নাথ অন্য থেকে বর্গা নেয়া ১৫ শত জমিতে লাউ চাষ করেছেন। মাত্র লাউ বিক্রি শুরু করেছেন এমন সময় সব লাউ গাছ কেটে দেওয়া হয়েছে। এসময় জমির পাশে লাগানো প্রায় ৩০ টি পেঁপে গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

কৃষক কানু চন্দ্র নাথ বলেন, গ্রামীণ ব্যাংক থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে ১৫ শতক জমিতে লাউ চাষ করেছি। কিন্তু রাতের আঁধারে কে বা কারা আমার জমির সব লাউ গাছ ও পাশে রোপণ করা পেঁপে গাছ কেটে দিয়েছে। এখন আমি কিভাবে ঋণ শোধ করবো বুঝতে পারছিনা।

কৃষক সুজন চন্দ্র নাথ বলেন, মানুষ থেকে টাকা ধার করে বরবটি চাষ করেছি। বরবটি গাছে ফুলও আসছিলো। আর কিছুদিন পরে বাজারে বিক্রি করতাম। বরবটি বিক্রি করে দেনা শোধ করবো চিন্তা করছিলাম। কিন্তু এখন কিভাবে কি করবো মাথায় আসছেনা। বিষয়টি স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে জানিয়েছি।

এই বিষয়ে ওয়াহেদপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ডের সদস্য আহসান উল্লাহ ভূঁইয়া বলেন, আমাকে বিষয়টি দুই ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক অবহিত করেছেন। যারা এমন অমানবিক কাজ করেছে তা খুবই ন্যাক্কারজনক। আমি কারা এই করেছে চিহিৃত করার চেষ্টা করছি।

উত্তর দিন