• Wednesday, September 19, 2018
logo
add image

এমপি ইউসুফকে ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি

এমপি ইউসুফকে ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি


 

সিটি নিউজ বিডিঃ গুরুতর অসুস্থ আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউসুফকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে আজ মঙ্গলবার (০৯ জানুয়ারি) বিকেল ৪টায় পুলিশ প্রহরায় ইউসুফকে নিয়ে একটি  অ্যাম্বুলেন্স সড়কপথে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা.আজিজুর রহমান সিদ্দিকী সাংবাদিকদের বলেন,আজ সকালে আবারও মেডিকেল বোর্ড উনার শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা করে মতামত দিয়েছে। রক্তচাপ আগের চেয়ে বেড়েছে। তবে শরীরের অবস্থা ফ্লাইটে ভ্রমণের উপযোগী নয় বলে মত দিয়েছে মেডিকেল বোর্ড। এজন্য সড়কপথে অ্যান্বুলেন্সে করে নেওয়া হচ্ছে।

শরীরে রক্তচাপ কিছুটা বাড়লেও কিডনি এখনও খুবই দুর্বল এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে সংক্রমণের ক্ষত আছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

মোহাম্মদ ইউসুফকে ঢাকায় নেওয়ার সময় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, জেলা প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরীসহ দলীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পাটি (সিপিবি) নেতা মোহাম্মদ ইউসুফ ১৯৯১ সালে পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট থেকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করে যুদ্ধাপরাধী সাকা চৌধুরীর ভাই এনডিপির প্রার্থী গিয়াস কাদের চৌধুরীকে পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হন। ৬৭ বছর বয়সী ইউসুফ রাঙ্গুনিয়ার কলেজে পড়ার সময় ছাত্র ইউনিয়নে যুক্ত হন। এই মুক্তিযোদ্ধার কর্মজীবন শুরু হয় ১৯৭৩ সালে, কর্ণফুলী পাটকলে কেরানীর চাকরিতে যোগ দেওয়ার মধ্য দিয়ে।

ওই সময় থেকেই তিনি কমিউনিস্ট পার্টির রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। শ্রমজীবী মানুষের রাজনীতিতে নিবেদিত প্রাণ ইউসুফের নিজের আর সংসার করা হয়ে ওঠেনি। ২০০৭ সালে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ইউসুফের শরীরের একাংশ অবশ হয়ে যায়। এরপর আরও নানা ব্যাধি তার দেহে বাসা বাঁধে। সম্প্রতি তার পায়েও ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু আর্থিক অসচ্ছলতায় তার চিকিৎসা করাতে না পেরে পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিকদের মাধ্যমে সরকারের সহায়তার জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

এদিকে সাবেক এমপি ইউসুফের বর্তমান দিনকাল নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জোড়ালো প্রচার হওয়ার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নজরে পড়ে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আসে চট্টগ্রাম জেলাপ্রশাসনে। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুকুর রহমান সিকদার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা জানিয়ে সিভিল সার্জনকে সাবেক সংসদ সদস্যের চিকিৎসার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন। গত রোববার ৭ জানুয়ারী সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী দুটি অ্যাম্বুলেন্স এবং তিনজন চিকিৎসক নিয়ে রাঙ্গুনিয়ায় মোহাম্মদ ইউসুফের বাড়িতে যান। অসুস্থ ইউসুফকে এনে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।